“ঐক্যফ্রন্ট থাকুক বা না থাকুক বিএনপি কর্মসূচি দেবে”

প্রকাশিতঃ 4:42 am | November 05, 2018 | ২০

নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে আজ সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চলতি সপ্তাহেই বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। ওই দিনই প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন। নির্বাচন কমিশনের ঘোষণার পরপরই জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা।

বিএনপির জন্য আজকের দিনটি ছিল কষ্টের, কারণ বিকেলে খবর আসে দলটির প্রতিষ্ঠাকালীন অন্যতম সদস্য এবং বর্তমান স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম মারা গেছেন। এরপরও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার দিন জানার পর জরুরি ভিত্তিতে সিনিয়র নেতারা বৈঠকে বসেন। জরুরি এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, আলোচনার মাধ্যমে সুষ্ঠু সমাধান হওয়ার আগেই যদি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়, তাহলে বিএনপি আন্দোলনের কর্মসূচি দেবে। এই কর্মসূচিতে ঐক্যফ্রন্ট থাকুক বা না থাকুক, তারা চূড়ান্ত কর্মসূচির দিকে এগিয়ে যাবে।

সূত্রগুলো বলছে, বিএনপির জরুরি বৈঠকে আন্দোলন কর্মসূচির ধরণ নিয়েও আলোচনা হয়েছে। ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার পরদিন শুক্রবার জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা হবে। তাই সিদ্ধান্ত হয়েছে, এর পরদিন শনিবার থেকেই বিএনপি রাজপথ দখলের কর্মসূচি শুরু করবে। রোববার থেকে তারা অবরোধ কর্মসূচি পালন করবে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আন্দোলনের কর্মসূচির বিষয়ে আগে তারা ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আলোচনা করবেন। ঐকফ্রন্ট রাজি না থাকলে বিএনপির নিজেরাই এই কর্মসূচি পালন করবে।