ময়মনসিংহে বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদকবিক্রেতা নিহত

প্রকাশিতঃ 6:02 pm | November 03, 2018 | ৭০

ময়মনসিংহ সদর ও মুক্তাগাছা উপজেলায় জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদকবিক্রেতা নিহত হয়েছেন।

শনিবার ময়মনসিংহ ডিবি কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়। নিহতরা হলেন- ফুলবাড়িয়া উপজেলার আন্দালিয়া গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহেল কাফি (৩১) ও ময়মনসিংহ নগরের কালিবাড়ি পুরাতন গোদারাঘাট এলাকার ইব্রাহিমের ছেলে আলমাগীর (২৭)।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে ডিবি পুলিশের একটি দল মুক্তাগাছা থানা এলাকায় বিশেষ অভিযানে গেলে গোপন সংবাদ পায় মুক্তাগাছা উপজেলার কাঁঠালিয়া ঝলই ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় কয়েকজন সন্ত্রাসী ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এতে এসআই নাজিম উদ্দিন, এএসআই মজিদ আহত হন। এ সময় পুলিশ গুলি চালায় এক পর্যায়ে গুলি করতে করতে পালিয়ে যান সন্ত্রাসীরা। পরে ঘটনাস্থল থেকে সন্ত্রাসী ও মাদকবিক্রেতা আব্দুল্লাহেল কাফিকে (৩১) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি ও দুই রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়। তার বিরুদ্ধে একাধিক সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা রয়েছে।

পুলিশ আরও জানান, ডিবির আরেকটি দল একই সময়ে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের সাহেব কাচারী বাজারের কাছে পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা কয়েকজন মাদকবিক্রেতা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এতে পুলিশ কনস্টেবল সাইদুল ইসলাম ও আরমান উদ্দিন আহত হন। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ শর্টগানের ফাঁকা গুলি ছুড়ে এক পর্যায়ে মাদকবিক্রেতারা গুলি করতে করতে পালিয়ে যান। পরে ঘটনাস্থল থেকে মাদকবিক্রেতা আলমাগীরের (২৭) গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুই কেজি গাঁজা এবং গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধেও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

জেলা ডিবি পুলিশের ওসি শাহ কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিরুদ্ধে একাধিক সন্ত্রাসবিরোধী আইনে ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।