ফুটপাত মুক্ত করতে ময়মনসিংহে হকার উচ্ছেদ

প্রকাশিতঃ 12:24 am | November 28, 2018 | ৩৫৫

যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলা বন্ধে পথচারী কর্তৃক আবর্জনা নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলার জন্য ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন শহরের বিভিন্ন রাস্তায় আবর্জনার পাত্র স্থাপন করেছেন।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন’ এর প্রশাসক মো. ইকরামুল হক টিটু’ র নির্দেশে ছোট ছোট ময়লা- আবর্জনা সমুহ ডাষবিনে ফেলার অভ্যাস গড়ে তোলতে সবাইকে সচেতন করছেন।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) রাতে নগরীর গাঙ্গিনারপাড় এলাকায় দেখাযায় সিটি কর্পোরেশন স্বাস্থ্য শাখার কর্মীরা ময়লা- আবর্জনা সমুহ ডাষবিনে ফেলার জন্য সকলকে এগিয়ে আসাার আহবান জানান। 

এসময় গাঙ্গিনারপাড় এলাকায় ফুটপাত এবং সড়ক থেকে অবৈধ শতাধিক দোকান উচ্ছেদ করেছে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন।   

সূত্র জানায়, কেরানীহাটে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ফুটপাত দখল করে দেড় শতাধিক দোকানি ও হকার বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসতেন। এতে পথচারীদের ফুটপাত ছেড়ে সড়কের ওপর দিয়ে চলতে হতো। তা ছাড়া সড়কের দুপাশ দোকানি ও হকাররা দখল করে রাখায় নিত্যদিন যানজটের সৃষ্টি হতো।

ইতিবাচক এ পরিবর্তনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে শহরের সকল শ্রেণি পেশার জনগন। পরিচছন্ন কর্মীরা সন্ধ্যার পর বিভিন্ন সড়ক ঝাড়– দিয়ে ময়লা আর্বজনা জড়ো করে, পরে গাড়ি এসে ময়লা তুলে নিয়ে রাতেই শহরের দুরে ভাগাড়ে ফেলা হচ্ছে। সকালে ঘুম থেকে উঠে পৌরবাসী পরিচ্ছন্ন নগর উপভোগ করছে। সকালে প্রাত:ভ্রমনে বের হওয়া অনেকেই স্বাচ্ছ্যন্দে যাতায়াত করছে। সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত থেকে শুরু হয়েছে রাতে ময়লা পরিস্কার করে পরিচ্ছন্ন নগর গড়ার স্বপ্ন।

সেনেটারী ইন্সপেক্টর দীপক মজুমদার বলেন, কেউ নতুন করে ফুটপাত দখল করার চেষ্টা করলে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।